প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৯ জুন ২০১৪

বিশেষ এলাকার জন্য উন্নয়ন সহায়তা (পার্বত্য চট্টগ্রাম ব্যতীত)

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় হতে বাস্তবায়নাধীন ‘‘বিশেষ এলাকার জন্য উন্নয়ন সহায়তা (পার্বত্য চট্টগ্রাম ব্যতীত)'' শীর্ষক কর্মসূচির কার্যক্রম ১৯৯৬ সালে শুরু করা হয়েছে যা চলতি অর্থ বছর পর্যন্ত চলমান আছে। দেশের বিভিন্ন জেলার সমতল ভূমিতে বসবাসরত ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীভুক্ত জনগোষ্ঠীর আর্থ-সামাজিক উন্নয়নই কর্মসূচির মূল উদ্দেশ্য। কর্মসূচিটি শুরু থেকে সম্পূর্ণ সরকারী অর্থে বাস্তবায়িত হচ্ছে। কর্মসূচির অনুকূলে বিগত তিনটি অর্থ বছরে (২০১০/২০১১ হতে ২০১২/২০১৩) মোট ৪৪.০০ কোটি টাকা বরাদ্দ ছিল।

বিগত তিনটি অর্থ বছরে ১৬০টি উপজেলায় বিভিন্ন ধরণের (যথাঃ- গরু পালন প্রকল্প, মৎস্য চাষ প্রকল্প, কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপন, সেলাই প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপন, পানের বরজ, হস্ত শিল্প, রিক্সা-ভ্যান চালানো প্রকল্প, পরিবহন প্রকল্প, নার্সারী সৃজন প্রকল্প, পোল্ট্রি প্রকল্প, তাঁত প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, জুতা তৈরি প্রকল্প, চিংড়ি চাষ প্রকল্প ইত্যাদি) ১৬০টি বৃহৎ আকারের আয়বর্ধনমূলক প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়। এছাড়া উক্ত প্রকল্প গ্রহণের পাশাপাশি বরাদ্দকৃত অর্থে প্রায় ১৮০টি উপজেলার ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীভূক্ত ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষা বৃত্তি, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সামগ্রী ক্রয়, টিউবওয়েল ও স্যানিটারী ল্যাট্রিন স্থাপন, কমিউনিটি সেন্টার নির্মাণ, আসবাবপত্র সরবরাহ, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নির্মাণ/সংস্কার, বিদ্যালয় সংস্কার, সংশ্লিষ্ট জনগোষ্ঠীর সমিতি অফিস সংস্কার ইত্যাদি কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে।

২০১২-২০১৩ অর্থ বছরের বরাদ্দকৃত অর্থ হতে বুয়েট / ইঞ্জিনিয়ারিং/ মেডিকেল/ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়/ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত কলেজ ও বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত ১১৭ জন ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীভুক্ত ছাত্র/ ছাত্রীদের ২২.০০ লক্ষ টাকা এককালীন শিক্ষা বৃত্তি প্রদানের বিষয়টি চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে।

চলতি অর্থ বছরে (২০১৩-২০১৪) কর্মসূচির আওতায় ১৬.০০ কোটি টাকা বরাদ্দ রয়েছে। উক্ত বরাদ্দকৃত অর্থে শিক্ষাবৃত্তি ও অন্যান্য সংশ্লিষ্ট খাতে বরাদ্দের পাশাপাশি প্রায় ১০০টি উপজেলায় ১০০টি সরাসরি আয়বর্ধনমূলক প্রকল্প গ্রহণের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

 গত ৩টি অর্থ বছরে কর্মসূচির আওতায় বরাদ্দকৃত অর্থ ও গৃহীত আয়বর্ধনমূলক প্রকল্প ও শিক্ষা বৃত্তি প্রদানের মাধ্যমে প্রায় প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে ৫০ হাজার ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর আর্থ-সামাজিক অবস্থা উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে।

 


Share with :
Facebook Facebook